ফ্রিল্যান্সিং কি | ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো

অনলাইন থেকে ইনকাম করার কথা মাথায় আসলে সবার প্রথমে যে বিষয়টা আসে সেটা একটা কম্পিউটার, যেটা ছাড়া অনলাইন থেকে ইনকাম করা অনেকটাই কষ্টসাধ্য ব্যাপার, তবে অসম্ভব নয়! যাদের কম্পিউটার নেই তারাও চাইলে অনলাইনে কাজ করে ইনকাম করতে পারবেন আমাদের মধ্যে এমন অনেকই যারা অনলাইন থেকে ইনকাম করতে চান আমার আজকের এই টিউটোরিয়াল টি তাদের জন্য লিখেছি যারা মোবাইল দিয়ে অনলাইন থেকে ইনকাম করতে চান। মোবাইল দিয়ে ইনকাম করার অনেকগুলো উপায় বা মাধ্যম আছে তবে আমি যেই উপায় গুলো শেয়ার করছি এগুলো ১০০% কার্যকরী এবং কোনো ধরনের পূর্ব অভিজ্ঞতা ছাড়াই এই কাজ গুলো করতে পারবেন।

ফ্রিল্যান্সিং কি, ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শিখবো

মোবাইল দিয়ে ইনকাম

মোবাইল দিয়ে ইনকাম করার অনেক গুলো উপায় বা মাধ্যমে আছে তার মধ্যে কয়েকটি উপায় শেয়ার করা হলো।

পিটিসি জব

পিটিসি PTC মানে পেইড টু ক্লিক এই কাজটি এতোই সহজ একটি কাজ যে ৬-৭ বছরের বাচ্চারাও এই কাজটি করতে পারবে, এবং অনলাইনে পিটিসি কাজ করার জন্য কোনো ল্যাপটপ বা কম্পিউটার এর প্রোয়জন নেই, আপনি  যদি মোবাইল দিয়ে অনলাইনে কাজ করে ইনকাম করতে চান তাহলে আপনার প্রথম চয়েজ হচ্ছে এই পিটিসি জব, যেটা করে প্রতিমাসে ৩-৪ হাজার টাকা ইনকাম করতে পারবেন খুব সহজেই।

মাইক্রো জব

আমি আমার জীবনের প্রথম ইনকাম করেছিলাম এই মাইক্রো জবের কাজ করে, মাইক্রো মানে মিনি জব মানে কাজ, অর্থাৎ ছোট ছোট কাজ যেমন ফেসবুক লাইক কমেন্ট করা, ইউটিউব এ ভিডিও দেখা, জিমেল খুলে দেওয়া, ওয়েবসাইট ভিজিট করা ইত্যাদি,,,  আপনি যদি মোবাইল দিয়ে ইনকাম করতে চান তাহলে মাইক্রো জব করতে পারেন এই কাজ করে মাসে ৮-১০ হাজার টাকা ইনকাম করা সম্ভব, আমি অনেকদিন ধরে এই কাজ করছি আমি চাইলে এখন প্রতিদিন মাইক্রো জবে এর কাজ করে প্রতিদিন ২-৩ ডলারের কাজ করতে পারি।

লিংক শর্টনার 

অনলাইনে দুই ধরনের ইনকাম আছে প্যাসিভ ইনকাম এবং এক্টিভ ইনকাম, এই লিংক শর্টনার হচ্ছে প্যাসিভ ইনকাম মানে কাজ করবেন একবার রেভিনিউ পাবেন বারবার, এই কাজ করতে তেমন কোনো অভিজ্ঞতারও দরকার নেই শুধুমাত্র একটি মোবাইলের মাধ্যমেই কাজ করতে পারবেন। যেকোনো নিউজ বা টিউটোরিয়ালের লিংক শর্ট করে সেই লিংক বিভিন্ন জায়গায় শেয়ার করতে হবে তারপর আপনার শেয়ার করা লিংকে যত বেশি ভিজিটর আসবর তত বেশি ইনকাম হবে, একটা লিংক শর্ট করে শেয়ার করতে সময় লাগে ৩ -৪ মিনিট আর এই লিংকের ইনকাম পাবেন সারা জীবন।

ফাইল শেয়ারিং

এই কাজটি অনেকটাই লিংক শর্টনারের মতো তবে একটু ভিন্ন লিংক শর্টনারে যেমন ভিজিটর লিংকে ক্লিক করলেই ইনকাম হবে আর ফাইল শেয়ারিং এর ক্ষেত্রে আপনার লিংকে ক্লিক করে সেই ফাইলটা ডাউনলোড করতে হবে। অনলাইনে ফাইল আপলোড করে ইনকাম করার অনেক ওয়েবসাইট আছে তার মধ্যে যেকোনো একটি তে জয়েন করে আপনার ফাইল টি আপলোড করে সেই ফাইলের লিংক টি বিভিন্ন জায়গায় শেয়ার করে দিন তারপর সেই লিংকে ক্লিক করে যত জন মানুষ আপনার আপলোড করা ফাইল টি ডাউনলোড করবে আপনার তত বেশি ইনকাম হবে। 

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং

আপনি মোবাইল দিয়ে ফেসবুক, কোরা অথবা যেকোনো কমিউনিটি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করতে পারবেন, অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এমন একটি কাজ বা জব যা থেকে একবার কাজ করে লাইফ টাইম প্যাসিভ ইনকাম করতে পারবেন, অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করার সব থেকে জনপ্রিয় কিছু সাইট বা নেটওয়ার্ক হচ্ছে অ্যামাজন, আলী এক্সপ্রেস, ইনভাটো, জেবিজো ইত্যাদি,,, তবে আপনি যদি একদমই নতুন হয়ে থাকেন তাহলে দারাজ অথবা বিডিশপে কাজ করুন, তারপর যখন কিছু অভিজ্ঞতা অর্জন করতে পারবেন তখন বড় বড় মার্কেট গুলোতে কাজ করবেন।

ব্লগিং

যদিও মোবাইল দিয়ে পুরোপুরি ভাবে ব্লগিং করা যায়না তবে আপনি শুরু করতে পারেন, ব্লগিং হচ্ছে বিশাল একটি সেক্টর আজ থেকে যদি শুরু করেন তাহল কমপক্ষে ৪-৫ মাস লেগে যাবে শিখতে, তাই কম্পিউটার বা ল্যাপটপের আশায় বসে না থেকে মোবাইল দিয়েই ব্লগিং শুরু করতে পারেন। ব্লগিং সম্পর্কে যদি আপনার কোনো প্রাথমিক ধারনা না থাকে তাহলে এই টিউটোরিয়াল টি দেখতে পারেন।

অনলাইন ইনকাম ও তথ্য প্রযুক্তির সকল বিষয়াবলী জানতে ভিজিট করুন। দুরন্ত আইটি

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url