ইন্দোনেশিয়ার বর্তমান রাষ্ট্রপতির নাম কি

প্রিয় পাঠক আসসালামু আলাইকুম আজকের এই টিউটোরিয়ালে ইন্দোনেশিয়ার বর্তমান রাষ্ট্রপতির নাম কি নাম কি, ইন্দোনেশিয়ার বর্তমান রাষ্ট্রপতির রাজনৈতিক জীবন এবং ইন্দোনেশিয়ার বর্তমান রাষ্ট্রপতির সংক্ষিপ্ত জীবনী সম্পর্কে আলোচনা করা হবে। আপনি যদি ইন্দোনেশিয়ার বর্তমান রাষ্ট্রপতির নাম কি এটা জানতে চান তাহলে এই টিউটোরিয়াল টি  আপনার জন্য যার মাধ্যমে আপনি ইন্দোনেশিয়ার বর্তমান রাষ্ট্রপতির নাম কি, ইন্দোনেশিয়ার বর্তমান রাষ্ট্রপতির রাজনৈতিক জীবন এবং ইন্দোনেশিয়ার বর্তমান রাষ্ট্রপতির সংক্ষিপ্ত জীবনী সম্পর্কে জানতে পারবেন চলুন জেনে নেয়া যাক। 

আমাদের বিশ্ব, সাধারন প্রশ্ন উত্তর, নতুন বিশ্ব, অজানা তথ্য, আজকের বিশ্ব, সাধারন জ্ঞান, জেনারেল নলেজ, কুইজ, ধাঁধা, এমসিকিউ, আইকিউ, বিসিএস প্রিলিমিনারি,

ইন্দোনেশিয়ার বর্তমান রাষ্ট্রপতির নাম কি 

ইন্দোনেশিয়ার বর্তমান রাষ্টপতির নাম হলো জোকো উইদোদো। জোকো উইদোদো ইন্দোনেশিয়ার ৭ম তম  রাষ্ট্রপতি। জোকো উইদোদো ২০১২ সাল থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত ইনি জাকার্তার গভর্নর। এবং ২০০৫ থেকে ২০১২ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত জোকো উইদোদো সুরাকার্তা‌র মেয়র ছিলেন। রাজনৈতিক অভিজাত বা সেনাবাহিনীর অফিসার বৃত্তের বাইরে থেকে প্রথম ইন্দোনেশিয়ার  রাষ্ট্রপত হন জোকো উইদোদো। তার আগে অন্য কেউ রাজনৈতিক অভিজাত বা সেনাবাহিনীর অফিসার বৃত্তের বাইরে থেকে ইন্দোনেশিয়ার রাষ্টপতি হতে পারেনি। জোকো উইদোদো ২০১৪ সালে ১৪ মার্চ ইন্দোনেশিয়ার রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের প্রার্থী হিসেবে তার দলের তরফ থেকে তার নাম ঘোষিত হয়। ২০১৪ সালে ৯ জুলাই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সেই নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে কিছু বিতর্কের পর ২০১৪ সালে ২২ জুলাই নির্বাচিত রাষ্ট্রপতি হিসেবে জোকো উইদোদো এর নাম ঘোষিত হয়। ইতিপূর্বে তার প্রতিপক্ষ প্রাবুয়ু সুবিয়ান্তো জুজুহাদিকুসুমুর বিপক্ষে ৫৩ ভাগ এর বেশি ভোট পাওয়ায় জোকো উইদোদো ইন্দোনেশিয়ার নির্বাচন কমিশন কর্তৃক বিজয়ী ঘোষিত হয়েছিলেন।


জোকো উইদোদো রাজনৈতিক জীবন

জোকো উইদোদোকে তার দলের জন্য রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী হিসেবে মনোনীত করেন মেঘবতী সুকর্ণপুত্রী। ২০১৪ সালে নির্বাচনে বিভিন্ন ভোট কেন্দ্রের দ্রুত গণনার ফলাফল পাওয়ার পর ৯ জুলাই জোকো উইদোদোকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। জোকো উইদোদো এর প্রতিপক্ষ প্রাবুয়ু সুবিয়ান্তোও নিজেকে বিজয়ী ঘোষণা করেন। যার কারণে জনসাধারণের মধ্যে দ্বিধাদ্বন্দ্ব জন্ম নেয়। ২০১৪ সালে ২২ জুলাই নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার ঘণ্টাখানেক পূর্বে প্রাবুয়ু নির্বাচন থেকে নিজেকে প্রত্যাহার করে নেন। নির্বাচন কমিশন জোকো উইদোদোকে ৫৩.১৫ ভাগ  ভোট পেয়েছেন বলে ঘোষণা করে। বিপরীত দিকে প্রাবুয়ু ৪৮.৮৫ ভাগ ভোট পান। কিন্তু প্রবুয়ুর সমর্থকরা এই ফল মানতে রাজি হননি। 


জোকো উইদোদো ২০০৫ থেকে ২০১২ পর্যন্ত সুরাকার্তা‌র মেয়র ছিলেন। জোকো উইদোদো সুরাকার্তা‌র মেয়র হিসেবে তার সাত বছরের জনগণের জন্য যে সকল কাজ করেছে তার মধ্যে রয়েছে। তাহলে   তিনি নতুন প্রথাগত মার্কেট নির্মাণ করে। এই মার্কেটের  মধ্যে রয়েছে দুর্লভ জিনিসের মার্কেট ও গৃহস্থালি দ্রব্যের মার্কেট, সুরাকার্তা‌র প্রধান সড়কের পাশাপাশি ৭ কিলোমিটার দীর্ঘ সড়ক ও ৩ মিটার চওড়া ফুটপাত নির্মাণ করে, বেলকামবাং ও স্রিওয়েদারি পার্ক সংস্কার করে, শহরকে বৈঠক ও প্রদর্শনী ইত্যাদির কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা, ব্লুসুকান সংস্কৃতি যার মাধ্যমে বিভিন্ন এলাকার মানুষ থেকে সরাসরি তাদের দাবি শোনার জন্য জোকো উইদোদো কোনো প্রস্তুতি ছাড়াও যেতেন, শহরের প্রধান সড়কের পাশের গাছ কাটার উপর কঠোর নিয়ন্ত্রণ জারি করে, সকল বাসিন্দার জন্য স্বাস্থ্যসেবার ইন্সুরেন্স কার্যক্রম করে, দ্বিতল বাস ও রেলবাসের মাধ্যমে গণপরিবহন ব্যবস্থা করে, সোলো টেকনো পার্ক যা এসেমকা ইন্দোনেশীয় গাড়ি প্রকল্পে সহায়তা করেছে।


জোকো উইদোদো এর সংক্ষিপ্ত জীবনী

জোকো উইদোদো জন্মগ্রহণ করে ২১ জুন ১৯৬১ সালে। জোকো উইদোদো এর বয়স হলো ৬২ বছর। তিনি ইন্দোনেশিয়ার সুরাকার্তা‌ শহর জন্মগ্রহণ করে। ইব্রাহিম রাইসি এর রাজনৈতিক দলের নাম হলো ইন্দোনেশিয়ান ডেমোক্রেটিক পার্টি অফ স্ট্রাগল। ইব্রাহিম রাইসি এর স্ত্রী নাম হলো ইরিয়ানা জোকো উইদোদো। ইব্রাহিম রাইসি এর তিনটি সন্তান আছে। তাদের নাম হলো জিবরান রাকাবুমিং রাকা, কাহিয়াং আয়ু ও কাইসাং পাঙ্গারেপ। প্রাথমিক শিক্ষার পর জোকো উইদোদো মাধ্যমিক বিদ্যালয় এসএমপি নেগেরি ১ সুরাকার্তা‌য় শিক্ষা গ্রহণ করেন। জোকো উইদোদো এসএমএ নেগেরি ১ সুরাকার্তা‌য় তার শিক্ষা গ্রহণ করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু ভর্তি পরীক্ষায় তিনি অকৃতকার্য হন। তার পরে এসএমএ নেগেরি ৬ সুরাকার্তা‌য় পড়াশোনার জন্য যান।


Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url